Home

এগার বছর চেয়ারম্যানি দায়িত্ব পালনকালে কোন অন্যায় করিনাই      ….চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম

 

ডালিম কুমার দাস টিটু ঃ এগার বছর দায়িত্ব পালন কালে কখনো কোন অন্যায় কাজ করিনাই বল্লেন ২নং দক্ষিন হামছাদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম । লক্ষ্মীপুর জেলার ইউনিয়ন গুলোর নির্বাচন শেষ হলেও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি সদর এবং কমলনগর উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নে। কোথাও সীমানা জটিলতা কোথাও নদীগর্ভে অনেক ওয়ার্ড বিলীন হয়ে যাওয়া কোথাও মামলা চলমান এভাবেই নির্বাচিত মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আরেকটি মেয়াদও শেষ হয়ে গেলো তৃতীয় মেয়াদেও এ সকল ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত হয়নি নির্বাচন। তবে ২ নং দক্ষিন হামছাদী ইউনিয়নের জনগনের নির্বাচন নিয়ে কোন ধরনের আক্ষেপ নেই কারন এই ইউনিয়নের জনগন তাদের জনপ্রতিনিধি চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম এর কাছ থেকে পাচ্ছেন সঠিক সেবা এবং চাহিদা অনুযায়ী পাচ্ছেন তাদের চাওয়া পাওয়া । এলাকায় করছেন ব্যাপক উন্নয়ন । সরকারের সব ধরণের সুযোগ সুবিধা জনগনের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছেন এই চেয়ারম্যান ।
মীর শাহ আলম ১৯৬৬ সালে , দক্ষিন হামছাদী ইউনিয়নে ,নন্দনপুর গ্রামের, মীর বাড়ির এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন । একজন সমাজ সেবক, রাজনীতিবিদ, শিক্ষানুরাগী সহ একজন ক্লিন ইমেজের ব্যাক্তিত্ব তিনি। তিনি ভালোবাসেন সাধারণ মানুষকে ভালোবাসেন মুজিবের আদর্শকে। ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামীরাজনীতির সাথে যুক্ত হন । মুজিবে আদর্শকে বুকে ধারন করে দীর্ঘ সময় আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত আছেন সফল চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম। ১৯৭৬ সালে দালাল বাজার এনকে উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন । পরে ১৯৮০-৮১ সালে তার রাজনৈতিক দক্ষতার উপর তাকে রায়পুর থানা ছাত্রলীগের কার্য্যকরি কমিটির সদস্য হিসেবে তাকে মনোনিত করা হয়। ১৯৮১ থেকে ৮৩ সাল পর্যন্ত লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালনে অঘ্রণী ভূমিকা রেখেছিলেন । এর পর ১৯৮৫ সালে তাকে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হলে তার বলিষ্ট নেতৃত্বে সুসংগঠিত হল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ । ১৯৮৭ সালে তিনি জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন । পরবর্তিতে ১৯৯১-১৯৯৬ সাল পর্যন্ত থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক এর দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ১৯৯৭ সালে নির্বাচনের মাধ্যমে তিনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের শীর্ষ পদ সভাপতি নির্বাচিত হন । বর্তমানে তিনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। তার সঠিক নেতৃত্বে এগিয়ে চলছে দক্ষিন হামছাদী ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ ।
চেয়ারম্যান মীর শাহ আলম বলেন, এগার বছর দায়িত্ব পালন কালে কখনো কোন অন্যায় কাজ করিনি কখনো কোন দুর্নিতী করিনি । লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ২১ টি ইউনিয়নের মধ্যে সবছেয়ে বেশি কাজ হয়েছে আমার এই দক্ষিন হামছাদী ইউনিয়নে । ৩ শ এর উপর গভির নলকূপ স্থাপন করেছি। কয়েকটি প্রাইমারি স্কুলের বাউন্ডারি ওয়াল করেছি। আমি অনেক গুলো নতুন রাস্তা তৈরি করেছি আমার এলাকার জনগনের সুবিধার্থে । আমি বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবো আমার এলাকার প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে আমি জনগনের আশানুরুপ কাজ করেছি । আগামী দিনও আমি আমার এলাকার জনগনকে সাথে নিয়ে ইউনিয়নের উন্নয়ন করে যেতে চাই । আগামী দিন আমি যদি নৌকা পেয়েও থাকি তাহলে আমি আমার ইউনিয়নে অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করবো।
জনগনের ভালোবাসায় আগামী দিনও জনগনকে সাথে নিয়ে ইউনয়নের উন্নয়ন এবং সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার আশা ব্যাক্ত করেন এই চেয়ারম্যান। সেই সাথে আওয়ামীলীগ যুবলীগ ছাত্রলীগ কৃষকলীগ স্বেচ্ছাসেবকলীগ সহ আওয়ামীলীগের সকল অংগসংগঠনকে সাথে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে রুপান্তর করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন তিনি ।

Related Articles

how do you feel about this website ?

Back to top button
%d bloggers like this: