Home

নায়িকা একার নাম পরিবর্তনের নেপথ্যে রয়েছে একটি নাটকীয়তা

ঢাকাই চলচ্চিত্রের নব্বই দশকের  আলোচিত নায়িকা একা। এক  সময় জনপ্রিয় নায়াকদের বিপরীতে কাজ করে বেশ আলোচিত হন। কিন্তু চিত্রনায়ক মান্নার মৃত্যুর পর চলচ্চিত্র থেকে অন্তরালে চলে যান। দীর্ঘ সময় পর নেতিবাচক সংবাদের মধ্য দিয়ে আবারো আলোচনায় এই নায়িকা। তার বিরুদ্ধে গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। ইয়াবা, গাজাসহ তার বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার (১ আগস্ট) আদালত তাকে কারাগরে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

১৯৯৭ সালে শাহিদা আরবী সিমন নাম নিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। এরপর কীভাবে একা নাম নিয়ে নায়িকা হয়ে একের পর এক সিনেমায় কাজ করেছেন? শাহিদা আরবী সিমন থেকে একা নাম ধারণ করলেন কীভাবে? নাম পরিবর্তনের নেপথ্যে রয়েছে একটি নাটকীয় ঘটনা। মূলত ‘তেজী’ সিনেমায় প্রথম তার নাম একা রাখা হয়। এ সিনেমা সংশ্লিষ্ট একজন রাইজিংবিডির এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন সেই নাটকীয় ঘটনা।১৯৯৭ সালে তোজাম্মেল হক বকুল পরিচালিত ‘রাখাল রাজা’ সিনেমার মাধ্যমে শাহিদা আরবী সিমন নাম নিয়ে ঢাকাই চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তার। সিনেমাটি ব্যবসায়ীকভাবে সফল হয়নি। পরের বছরই প্রয়াত সুপারস্টার মান্নার সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘তেজী’ সিনেমায় অভিনয় করেন। এটি পরিচালনা করেন গুণী নির্মাতা কাজী হায়াৎ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব‌্যক্তি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘‘ডিপজল সাহেব প্রযোজিত ‘তেজী’ সিনেমার জন্য মান্নার বিপরীতে পপিকে ঠিক করা হয়। সবই ঠিক ছিলো, হঠাৎ করেই মহরতের দিন বেঁকে বসেন পপি। তিনি জানান, মহরতে যেতে পারবেন না। বিষয়টি নিয়ে সিনেমা সংশ্লিষ্টদের মাথায় হাত! সিদ্ধান্ত নেয়া হয় পপি বাদ। এরপরই একাকে এ সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়। তিনি শুরুতে গড়িমসি করেন। এক পর্যায় বলেন—পরিচালক তোজাম্মেল হক বকুলের অনুমতি নিয়ে কাজ করবেন। তখন একরকম ফোর্স করেই নিয়ে আসা হয় তাকে। আর সেই সময়ই বলা হয় আজ থেকে তোমার কেউ নেই তুমি একা। আর এই সিনেমায় তোমার নামও একা। পরে একা নাম নিয়ে সিনেমাটি মুক্তি পায়৷ সিনেমাটি হিট হয়। এরপর থেকে একা নাম নিয়েই চলচ্চিত্রে কাজ করেন তিনি।’’

এদিকে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ‘তেজী’ সিনেমার পরিচালক কাজী হায়াৎ বলেন, ‘জিপজল সাহেব সিনেমা বানাবেন। গল্প রেডি। তখন সিনেমার নামও ঠিক করা হয়নি। মান্নাও তখন হিট হয়নি। তার বিপরীতে প্রথমে পপিকে বললাম। শেষ পর্যন্ত পপিকে পেলাম না। এর পরে মুনমুনকে বললাম ও রাজি হলো না। পূর্ণিমা সিনেমায় তখন নতুন। ওকে বললাম ও রাজি হয়নি। পরিচালক হান্নান বললেন—তোজাম্মেল হক বকুল নতুন একটা নায়িকা নিয়ে আসছেন। ওকে দেখতে পারেন। পরে যোগাযোগ করলে একা সিনেমাটিতে কাজ করে। এর পরে আমি তাকে নিয়ে একটা কাজ করেছিলাম।‘তেজী’ সিনেমায় অভিনয় করার পরই পরিচিতি লাভ করেন একা। এরপরে নিজের সমসাময়িক প্রায় সব তারকা নায়কদের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করে হিট সিনেমা উপহার দেন। তবে সবচেয়ে সফল ছিলেন মান্না-একা। মান্নার সঙ্গেই টানা ২০-২৫টির মতো সিনেমায় অভিনয় করেন একা। ওই সময়ে এ জুটিকে লুফে নিয়েছিল দর্শক। মান্নার মৃত্যুর পর রুবেল, অমিত হাসান, আমিন খান, আলেকজান্ডার বো, শাকিল খান, ফেরদৌস, শাকিব খানসহ সবার সঙ্গেই অভিনয় করে সাফল্য পেয়েছেন এই নায়িকা।

Related Articles

how do you feel about this website ?

Back to top button
%d bloggers like this: