রামগতি

রামগতি উপজেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষপদ প্রত্যাশী মেজবাহ উদ্দিন (ভিপি হেলাল)

রামগতি উপজেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষপদ প্রত্যাশী মেজবাহ উদ্দিন (ভিপি হেলাল)

 

ডালিম কুমার দাস টিটু ঃ আসছে রামগতি উপজেলার আওয়ামীলীগের কাউন্সিলে শীর্ষ প্রত্যাশী ত্যাগী আওয়ামীলীগ নেতা মেজবাহ উদ্দিন ভিপি হেলাল। রামগতি আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে যারা বেশি রাজপথে ভুমিকা রেখেছেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন হলেন মেজবাহ উদ্দিন( ভিপি হেলাল) তাই সঠিক সময় এসেছে তাদেরকে মূল্যায়ন করার আসছে আগামী কাউন্সিলে শীর্ষ পদ প্রত্যাশী হিসাবে মেজবাহ উদ্দিন(ভিপি হেলাল) আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।
মেজবাহ উদ্দিন ( ভিপি হেলাল) রামগতি উপজেলার মাটি ও মানুষের একজন প্রিয় মানুষ । এলাকায় তিনি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত আছেন । কোন রকম স্বার্থ ছাড়া অসহায়দের পাশে দাাঁড়ান এই নেতা। আওয়ামীলীগের কর্মীদের দুর্দিনে একমাত্র এই একজন ব্যাক্তি কর্মীদের সহায়ক হিসেবে পাশে দাাঁড়ান।
নদী ভাঙ্গনের শিকার হওয়া অসহায় মানুষের পাশে থেকে কাজ করা সহ বিভিন্ন রকম সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন মেজবাহ উদ্দিন ( ভিপি হেলাল) । রামগতি উপজেলার সাধারণ জনগনের সাথে মেজবাহ উদ্দিন ( ভিপি হেলাল) এর নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে।
দীর্ঘ সময় রামগতি আওয়ামীলীগের জন্য নিবেদিত ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন এমন কি বৃহত্তর রামগতি উপজেলার মাটি ও মানুষের নেতা দীর্ঘ সময়ের যুবলীগের আহŸায়ক মেজবাহ উদ্দিন (ভিপি হেলাল)। জেলা যুবলীগের সদস্য হিসেবে দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। একসময় আ স ম আব্দুর রব সরকারি কলেজের ভিপি ছিলেন।
ছাত্রলীগের দায়িত্ব পালন কালে তিনি কখনো অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেননি। এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোন রকম দুর্নীতি বা অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়নি । দুঃসময়েও মুজিবের আদর্শকে প্রতিষ্ঠিত করতে প্রাণপন চেষ্টা করেছিলেন এবং অবশেষে সফল ও হয়েছেন। ২০০৩ সালে জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে তৎকালীন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিলের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে মেজবাহ উদ্দিন ভিপি হেলালের নেতৃত্বে রামগতি ছাত্রদল ও জাসদ ছাত্রলীগের ৩ শতাধিক নেতাকর্মী সহ আওয়ামীলীগে যোগদান করেন। সেই থেকে আওয়ামীলীগের জন্য নিবেদিত ভাবে কাজ শুরু করেন যা আজো অব্যাহত রয়েছে ।
আগামী কাউন্সিলের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ”দৈনিক নতুন দিনকে” বলেন, আমাদের এই রামগতির মানুষ গুলো নদী ভাঙ্গা অবহেলিত । কোন রকম স্বার্থ ছাড়াই আমি এদের পাশে ছিলাম পাশে আছি এবং পাশে থাকবো । আমাদের সকলের প্রাণের স্পন্ধন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এদেশের অসহায় মানুষের লক্ষ্যে যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন আশা করি ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে বিশ্বের বুকে উন্নয়নের রোল মডেল। আমি রাজনীতি করি মুজিবের আদর্শের আর আমার প্রিয়নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। আমার কারো প্রতি কোন রকম বিরোধ নেই , আমি আমার উপজেলা আওয়ামীলীগ ,যুবলীগ এবং ছাত্রলীগ সহ সকল নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে এলাকার উন্নয়ন এবং জনগনের জন্য কাজ করে যেতে চাই। কারন আমি আমার প্রিয়নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনা এবং তার নেতৃত্বকে এছাড়াও আমাদের জেলা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে সম্মান করি । বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বিশ্বাস করি। তাই কোন রকম হিংসা বিদ্বেস এর উর্দ্ধে আওয়ামীলীগের জন্য কাজ করে যাবো । মুজিবের আদর্শকে লালন করে বাকি সময় ও জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বে এই প্রাণের সংগঠনের জন্য কাজ করার প্রতিজ্ঞা ব্যাক্ত করেন রামগতি উপজেলা আওয়ামীলীগের শর্ষি পদ প্রত্যাশী মেজবাহ উদ্দিন ভিপি হেলাল।

Related Articles

how do you feel about this website ?

Back to top button
%d bloggers like this: